শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭

নরসুন্দর মানুষ: জঙ্গিনামা - ৩

 প্রত্যেক মুছলিমের জন্য ফরজ করা হয়েছে জিহাদ নামের ইছলামী বর্বরতা। অনেক ভণ্ড মুছলিম জিহাদকে কোমল ও সুমিষ্ট মোড়কে উপস্থাপন করতে চাইলেও বাস্তবতা একেবারেই ভিন্ন। সেই মুছলিমদের প্রতারণার জাঙ্গিয়া-নামানো জবাব দেয়া হয়েছে জঙ্গিনামা নামের অভিনব এই ইবুকে।

➜ জিহাদ দ্বারা কিভাবে ফিৎনা ফ্যাসাদ নির্মূল করা সম্ভব অথচ জিহাদ করতে গেলে তো ব্যাপক রক্তপাত হয়, অসংখ্য মানুষের প্রাণনাশ ঘটে?
➜ মুসলমানদের উপর জিহাদের হুকুম কী? অনেকেই তো জিহাদ পছন্দ করে না, বা জিহাদ করতে চায় না।
➜ কোন কোন লোকদের সাথে আমাদের জিহাদ করতে হবে?
➜ কাফির মুশরিকদের বিরুদ্ধে এ ধরনের জিহাদ আমাদেরকে কতদিন পর্যন্ত চালিয়ে যাতে হবে?
➜ আমরা তো দেখি যে, কাফির-মুশরিকরাই ধন-দৌলতের প্রাচুর্যের মধ্যে আরামে আছে। আর আমাদেরকে আল্লাহ্‌ তা'আলা যদি সত্যিই ভালোবাসেন, তাহলে কাফির-মুশরিকদের মতো আমাদের এতো ধন-দৌলত নেই কেন?
➜ আমাদেরকে সর্বদা এ ধরনের প্রস্তুত হয়ে থাকতে হবে কেন? আর কেনই বা সর্বদা সাথে অস্ত্র রাখতে হবে?
➜ যদি নিজেদের বাপ, ভাইদের মধ্য থেকে কেউ কাফের হয় বা ঈমানের তুলনায় কুফরকে বেশি পছন্দ করে, তাহলে তাদেরকেও কি অভিভাবক রূপে গ্রহণ করা যাবে না?
➜ জিহাদ ছাড়ার কারণে আমাদের উপর যেই শাস্তি আসবে, তার ধরনটা কী রকম হবে? তা কি শুধু আখিরাতেই আসবে, নাকি দুনিয়াতেও আসবে?
➜ জিহাদ না করলে আমরা কি জান্নাতেও যেতে পারবো না?
➜ জিহাদের কথা বললে তো অনেকেই অব্যাহতি চায়, বিভিন্ন ওজর দেখায়, যারা এ ধরনের কার্যকলাপে লিপ্ত, তাদের ঈমান কোন পর্যায়ের?

এমন ১০০টি প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়েছে শুধু কোরানের আয়াত উদ্ধৃত করে। এ বিষয়ে নিচের কথাগুলো বলেছেন বইটির সংকলক, অনুবাদক, প্রচ্ছদশিল্পী ও নির্মাণকারী নরসুন্দর মানুষ

এই ইবুক সিরিজটির প্রথম খণ্ড পাঠের পর যেসব মুসলিমদের রেফারেন্স-রেফারেন্স (তথ্যসূত্র-তথ্যসূত্র) বলে চিৎকার ছিলো, তাদের মাথায় ঠাণ্ডা পানি ঢালতেই প্রথম খণ্ডের তাফসীর (ব্যাখ্যা) হিসেবে দ্বিতীয় খণ্ডের জন্ম দেয়া হয়! 

কিন্তু অতি সম্প্রতি পৃথিবীতে কিছু নতুন জাতের মুসলিম জন্মেছে, যাদের বলা হয় 'কোরান অনলি' (শুধু কোরান মানি) মুসলিম। এই উদ্ভট ধরনের মুসলিমদের প্রশ্নের জবাব দিতে; এই খণ্ডে সরাসরি কোরানকেই তাদের মুখোমুখি বসিয়ে দেওয়া হলো; যেহেতু এটি 'কোরান' ও 'শুধু কোরান মানি' মুসলিমের মধ্যে একটি কথোপকথনমূলক ইবুক, তাই পাঠক কোরানের ভাষাতেই পেয়ে যাবেন ইসলামে জিহাদের প্রয়োজনীয়তা এবং ইসলাম ধর্মের আসল চরিত্রের দিক-নির্দেশনা!

এই খণ্ডটিকে আমরা জঙ্গিবাদের তুরুপের তাস বলে বিবেচনা করছি!

ফরম্যাট: পিডিএফ (সম্পূর্ণভাবে মোবাইলবান্ধব)
সাইজ: ৯৯০ কিলোবাইট মাত্র
ডাউনলোড লিংক (গুগল ড্রাইভ)
ডাউনলোড লিংক (ড্রপবক্স)

নিচে অনলাইনে পাঠযোগ্য ভার্শন:

শনিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০১৭

আবুল কাশেম: ইসলামে বর্বরতা - নারী অধ্যায়

ইছলাম নারীকে দিয়েছে অপরিমেয় মর্যাদা ও সর্বোচ্চ সম্মান - এমন গালভরা দাবি করতে ইছলামবাজেরা অক্লান্ত।

এবং হাজার বছরের বিরামহীন প্রচারণা ও নিরন্তর মগজধোলাইয়ের ফলাফল হয়েছে এই যে, মুছলিম পুরুষেরা তো বটেই, অধিকাংশ মুছলিম নারীও এই বাগাড়ম্বরে বিশ্বাস করে।

"ইসলামে বর্বরতা: নারী অধ্যায়" - নামের এই বইয়ে সম্পূর্ণভাবে স্বীকৃত ইছলামী দলিল-দস্তাবেজ ও ছহীহ তথ্যসূত্র থেকে উদ্ধৃতির পর উদ্ধৃতি দিয়ে এই মিথ মিথ্যা প্রমাণ করেছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ও কিংবদন্তিতুল্য ইছলাম-গবেষক এবং কোরান, হাদিস ও ইছলামের ইতিহাস সম্পর্কে অগাধ পাণ্ডিত্যের অধিকারী আবুল কাশেম। 

এই ইবুক বানিয়ে দিয়েছেন 'নিখিল বাংলাদেশ ইবুক প্রিন্টিং প্রেস'-এর স্বত্বাধিকারী নরসুন্দর মানুষ। প্রচ্ছদও তাঁরই করা।

প্রকৃত ইছলাম সম্পর্কে জানতে হলে এই বইটি পড়তেই হবে।

ফরম্যাট: পিডিএফ
পৃষ্ঠাসংখ্যা: ১০৩
সাইজ: ১.১ মেগাবাইট

ডাউনলোড লিংক (গুগল ড্রাইভ)
ডাউনলোড লিংক (ড্রপবক্স)

নিচে অনলাইনে পাঠযোগ্য ভার্শন: